Thursday, August 5, 2021
Homeঅন্যস্বাদেশান্তিনিকেতনের আদলে দোল উৎসবে মাতল বর্ধমানের ছোট্ট সংস্থিতা, সম্ভাবী, শ্রেয়মরা

শান্তিনিকেতনের আদলে দোল উৎসবে মাতল বর্ধমানের ছোট্ট সংস্থিতা, সম্ভাবী, শ্রেয়মরা

আমার বাংলা ওয়েব,বর্ধমান,২৯ মার্চ :
অন্যান্য দিনের তুলনায় বেশ কিছুটা আগে ঘুম ভেঙেছে সংস্থিতা, সম্ভাবী, শ্রেয়ম, অহন অভিনব, মহিম, মান্নাত অভিরূপদের। অন্য সোমবার গুলোয় ঘুম ভাঙলেও বিছানা ছেড়ে উঠতে খুব কষ্ট হয় । সেই একঘেঁয়ে রুটিন। পড়তে বসা, ছবি আঁকা, গানের ক্লাস করা আরো কত্ত কী? কেন যে সোমবার গুলোর রঙ একটু আলাদা হয় না। ভাবতে থাকে সংস্থিতা, মান্নাতরা।

এদিকে আজকের সোমবারটা যেন কিছুটা হলেও আলাদা। শ্রেয়ম, অহন অভিনবদের ভাবনার রঙে রঙ মেলানো এক টুকরো শান্তিনিকেতনের বসন্ত উৎসবের ছবি উঠে এসেছে বর্ধমান শহরের বিবেকানন্দ কলেজ মোড়ে তাদের আবাসনে। আর সেই উৎসবে সামিল হতে ভোর থেকেই প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন আট থেকে আশি সকলেই। সকাল আটটার মধ্যে সকলেই আবাসন প্রাঙ্গনে মহিম, শ্রেয়ম সম্ভাবী সহ সকলেই হাজির। ততক্ষণে কানে ভেসে আসছে ওরে গৃহবাসী খোল দ্বার খোল লাগলো যে দোল… এর সুর। আর কি নিজেকে ধরে রাখা যায়। কখন যেন আপন মনে ডান্ডিয়া নৃত্যের তালে তালে ছন্দ মেলাতে শুরু করে দিয়েছেন সকলেই। আপন খেয়ালে তারা এগিয়ে চলেন নিজেদের পরিচিত পথ ধরে। আবাসনের রাস্তার দুই পাশে রঙিন আবিরের আলপনা তাদের স্বাগত জানাতে প্রস্তুত। ততক্ষণে আবাসনের গাছের ফাঁক দিয়ে সূর্যের নরম আলো উঁকিঝুঁকি মারতে শুরু করেছে। সেই আলো ডান্ডিয়া নৃত্যের তালে তালে এর মুখ থেকে অন্যের মুখে এগিয়ে চলেছে।

আবাসনের বাসিন্দা অদ্বৈত খাঁ বলেন, সমস্ত সরকারি বিদেশের বিধি-নিষেধ মেনে আবাসনের বাসিন্দারা মিলে দোল উৎসব পালন করছি। তিনি বলেন করোনা পরিস্থিতির জেরে এক বছরের বেশি সময় ধরে আমরা কার্যত গৃহবন্দি। তাই সেখান থেকে বেরিয়ে এসে আবাসনের ছোট ছোট ছেলে এবং তাদের পরিবার পরিজনদের একসাথে নিয়ে এসে আমরা দিন আনন্দ-উৎসবে মেতে উঠেছি।

আবাসনের অপর বাসিন্দা শেখ রবিউল হোসেন বলেন রঙিন আবির খেলার মাধ্যমে আমরা আমাদের সকলের মধ্যে বন্ধনকে আরো সুদৃঢ় করে তুলছি।

আবাসনের বাসিন্দা ডঃ সৌম্য দাস বলেন, আমরা শান্তিনিকেতনের ধাঁচে এই দোল উৎসবকে পালন করছি। সকালে প্রভাতফেরির মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়েছে।করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে ক্যাম্পাসের বাইরে আমরা বের হইনি। এছাড়া সরকারি নিয়ম মেনে স্যানিটাইজার মাস্ক সবকিছুই আমরা রেখেছি। সকলকে নিয়ে আনন্দ যজ্ঞে মেতে ওঠাই আমাদের ক্ষুদ্র প্রয়াস।

ততক্ষণে একের পর অনুষ্ঠান চলছে। ব্যস্ত হয়ে পড়েছে মহিম,মান্নাত,অভিরূপ,অভিনবরা। আজকের সোমবারটা সত্যিই রঙিন। এরকমই তো পছন্দ সংস্থিতা, সম্ভাবী, শ্রেয়মদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

RELATED ARTICLES

সাম্প্রতিক খবর

মন্তব্য