West Bengal polls : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কি ফের মনোনয়ন জমা দেবেন, জল্পনা

26

আমার বাংলা ওয়েব, নন্দীগ্রাম, ১ এপ্রিল:
পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের দ্বিতীয় পর্যায়ে ৩০ টি বিধানসভা কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ করা হয়। যার মধ্যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ আসন ছিল নন্দীগ্রাম।

নির্বাচনি প্রচারে এসে সেই নন্দীগ্রাম প্রসঙ্গ তুললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। জল্পনা উসকে দিয়ে তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়ে বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অন্য কোন বিধানসভা কেন্দ্র থেকে দাঁড়াচ্ছেন কি না?

এদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দিয়েছেন নন্দীগ্রাম বিধানসভা থেকে তিনিই জিতবেন। এরপরেই তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে জানা গেছে অন্য কোন বিধানসভা কেন্দ্র থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভোটে দাঁড়াচ্ছেন না।
বেশ কয়েকদিন দিন ধরেই বিজেপির তরফে কানাঘুষো শুরু হয়েছে নন্দীগ্রাম বিধানসভা থেকে নির্বাচনে হেরে যাওয়ার ভয়ে অন্য কোন আসন থেকে ভোটে লড়ার পরিকল্পনা করেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন সেই জল্পনাকে আরো উসকে দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

বৃহস্পতিবার উলুবেড়িয়ার বিজেপি জনসভায় যোগ দিতে এসে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী কটাক্ষ করে তৃণমূল নেত্রীর উদ্দেশ্যে বলেন, দিদিই এক্সিট পোল। দিদির চোখে-মুখে হাবভাবে তা স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে। আপনি কি অন্য কোন কেন্দ্র থেকে দাঁড়াচ্ছেন। মানুষের মধ্যে কৌতূহল তৈরি হয়েছে। তিনি আরো বলেন,
বাংলা যেটা চাইছে সেটাই ঘটছে নন্দীগ্রামে। ভবানীপুর ছেড়ে নন্দীগ্রামে গিয়ে দিদি ভুল করেছেন। এর পরেই তিনি খোঁচা দিয়ে বলেন আপনি কি অন্য কোন কেন্দ্র থেকে দাঁড়াচ্ছেন।

যদিও সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে বিধানসভা নির্বাচনে অন্য কোন কেন্দ্র থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাঁড়ানোর কোন প্রশ্ন নেই, তিনি নন্দীগ্রাম থেকে জিততে চলেছেন বলে জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন নন্দীগ্রামে বসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, বুধবার রাত থেকেই এলাকায় গুন্ডামী শুরু করেছে বিজেপির প্রার্থী। ফলে ভোটাররা ভোট দিতে পারছিলেন না। আমরা ইতিমধ্যেই ৬৩ টি অভিযোগ কমিশনে জানিয়েছি। অবশ্য নন্দীগ্রামের ফল কি হবে তা নিয়ে চিন্তিত নন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘আমি নন্দীগ্রাম নিয়ে চিন্তিত নই । আমি চিন্তিত গণতন্ত্র নিয়ে। নন্দীগ্রামে আমি জিতবই।’

বিজেপির রাজ্য সহ-সভাপতি জয়প্রকাশ মজুমদার বলেন, নন্দীগ্রামে বিপুল ভোটে জিতবেন শুভেন্দু। তৃণমূলের পরাজয় ঠেকাতে সেখানে প্রার্থী হয়েছিলেন মমতা। শেষ রক্ষা হলো না। যে যাই বলুক না কেন অবশ্য নন্দীগ্রামের ফলাফল জানার জন্য ২ মে পর্যন্ত সকলকেই অপেক্ষা করতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.